সর্বজনকথা প্রসঙ্গে

আমাদের ইচ্ছা একটি ত্রৈমাসিক বাংলা পত্রিকা হিসাবে “সর্বজনকথা” প্রকাশ করা। আপাতত আমরা এটি প্রকাশ করছি অনিয়মিত সংকলন হিসেবে। এই পত্রিকায় সমসাময়িক ঘটনাবলীর পর্যালোচনা, বৈশ্বিক ও দেশীয় রাজনৈতিক অর্থনৈতিক সামাজিক বিষয়ের বিশ্লেষণ ছাড়াও থাকবে মাঠপর্যায়ে গবেষণাভিত্তিক লেখা, সাহিত্য, আলোকচিত্র ও চলচ্চিত্র পর্যালোচনা ও গুরত্বপূর্ণ অন্যভাষী লেখার অনুবাদ। মানুষ ও প্রকৃতি সংশ্লিষ্ট সকল বিষয়ই আমাদের মনোযোগের অন্তর্ভুক্ত। ‘সর্বজন’ শব্দটি বাংলাদেশে খুব প্রচলিত নয়। ২০১১ সালে বর্তমান ‘সর্বজনকথা’র সম্পাদক প্রচলিত ‘পাবলিক’ শব্দের বাংলা হিসেবে ‘সর্বজন’ ব্যবহারের প্রস্তাব করে বলেন, ‘এই পরিচয় পরিষ্কার করা শুধু শব্দের ব্যাপার নয়, নিজের সম্পদকে নিজে চিহ্নিত করে তার মালিকানা নিশ্চিত করায় সর্বজনের সক্রিয়তার জন্যই তা খুব গুরুত্বপূর্ণ। কেননা, সর্বজনের বিশ্ববিদ্যালয়ই শুধু নয়, সর্বজনের চিকিৎসা, পানি, খনিজ সম্পদসহ সর্বজনের সবই এখন দখলদারদের থাবার নিচে। এই থাবা মোকাবিলা তাই আমাদের অস্তিত্বের প্রশ্ন।’
(more…)
Social Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •